Breaking News
Home / Education / বিশ্বসেরা বিজ্ঞানীদের তালিকায় চুয়েটের ২ শিক্ষক

বিশ্বসেরা বিজ্ঞানীদের তালিকায় চুয়েটের ২ শিক্ষক

যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি সম্প্রতি বিশ্বের শীর্ষ গবেষণা বিজ্ঞানীদের নিয়ে এলসেভিয়ার প্রকাশনার উপর ভিত্তি করে একটি তালিকা প্রকাশ করেছে।এই তালিকায় স্থান পেয়েছেন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষক। তারা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের যন্ত্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল ভূঞা এবং কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. ইকবাল হাসান সরকার।

১৯৬৫ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বিশ্বের ৬০ লাখ বিজ্ঞানীর প্রকাশনা, এইচ-ইনডেক্স, সাইটেশন ও অন্য সূচকগুলো বিশ্লেষণ করে তালিকাটি প্রস্তুত করা হয়। সম্প্রতি ২০২১ সালের আগাস্ট মাসে হালনাগাদ করে প্রকাশিত হয়। এই প্রতিবেদনটি বিজ্ঞানীদের ২২টি বৈজ্ঞানিক ক্ষেত্র এবং ১৭৬টি উপ-ক্ষেত্রে শ্রেণিবদ্ধ করে মোট ১,৮৬,১৭৮ জন গবেষককে এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এই র‌্যাংঙ্কিংয়ের স্কোপাস ইন্ডেক্সড আর্টিকেলকে ভিত্তি হিসেবে ধরা হয়েছে।

ড. মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল ভূঞা ২০০৩ সালে চুয়েট থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে স্নাতক (বিএসসি) এবং ২০০৮ সালে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে স্নাতকোত্তর (এমএসসি) ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়াও, ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার সেন্ট্রাল কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল ও প্রযুক্তি স্কুল থেকে ডিজেল ইঞ্জিনের বিকল্প জ্বালানি হিসাবে ২য় প্রজন্মের বায়োডিজেল বিশেষত নবায়নযোগ্য জ্বালানি বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তার গবেষণামূলক আগ্রহের মধ্যে তাপ স্থানান্তর বৃদ্ধি, তাপীয়-তরল, নবায়নযোগ্য শক্তি, বিকল্প জ্বালানি এবং শক্তি রূপান্তর অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

এদিকে, ড. সরকার চুয়েট থেকে ইবিএসসি এবং এমএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এছাড়া ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার সুইনবার্ন ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি, মেলবোর্ন থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

অধ্যাপক মোস্তফা কামাল ভূঞা এ পর্যন্ত শীর্ষস্থানীয় আন্তর্জাতিক জার্নাল ও কনফারেন্সে ৭৬টিরও বেশি গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশ করেছেন। ওয়েব অব সায়েন্স তার গবেষণা পেপার্সগুলোকে খুব বেশি উদাহরণ হিসেবে ব্যবহৃত ক্যাটাগরিতে শ্রেণিবদ্ধ করেছে। বিভিন্ন স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক জার্নাল এবং সম্মেলনে যৌথ পর্যালোচক হিসাবে তার উল্লেখযোগ্য অবদান রয়েছে।

ড. ইকবাল সরকারের গবেষণার বিষয়বস্তু মূলত ডেটা সায়েন্স, মেশিন লার্নিং, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এবং সাইবার সিকিউরিটি অ্যানালিটিক্স। ড. সরকারের গবেষণাকর্মগুলো এলসেভিয়ার, স্প্রিঞ্জার, এসিএম, আইইইই-এর বিভিন্ন স্বনামধন্য জার্নাল এবং কনফারেন্সে প্রকাশিত হয়েছে। সম্প্রতি তার লেখা একটি বই “কন্টেক্সট-আওয়ার মেশিন লার্নিং অ্যান্ড মোবাইল ডেটা অ্যানালিটিকস”, স্প্রিঞ্জার ইন্টারন্যাশনাল পাবলিশার কর্তৃক গৃহীত হয়েছে। বইটি চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের যুগে ইন্ডাস্ট্রি এবং অ্যাক্যাডেমিয়া উভয়ক্ষেত্রেই গবেষণা এবং স্মার্ট অ্যাপ্লিকেশন তৈরিতে সহায়ক হবে বলে মনে করেন।

অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল ভূঞা এবং ড. ইকবাল হাসান সরকার অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন, আমরা গর্বিত এবং আনন্দিত। নিশ্চয়ই বিশ্বের শীর্ষ ২ শতাংশ গবেষকদের তালিকায় আসার অর্জন যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য অনেক সম্মানের। সূত্রঃ নিউজ গার্ডিয়ান

About admin

Check Also

গুগলে চাকরি পেলেন চট্টগ্রামের মেয়ে শাম্মী

বাংলাদেশের নারীদের জন্য অনুপ্রেরণার এক নাম তিনি। বর্তমানে টেক জায়ান্ট গুগলের প্রোডাক্ট ম্যানেজার হিসেবে কাজ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.